Home / অনলাইন ইনকাম / কনটেন্ট রাইটিং করে ইনকাম করুন মাসে ২০০-৫০০ ডলার (Part-1)
কনটেন্ট রাইটিং করে ইনকাম করুন মাসে ২০০-৫০০ ডলার

কনটেন্ট রাইটিং করে ইনকাম করুন মাসে ২০০-৫০০ ডলার (Part-1)

কনটেন্ট রাইটিং করে ইনকাম করুন মাসে ২০০-৫০০ ডলার  আয়া করাকি আসলেই সম্ভব।আপনি যদি একজন ছাত্র হন তাহলে আপনার কাছে অসংখ্য সময় আছে ইন্টারনেটে কাজ করার জন্য কিন্তু । আমরা সাধারণত কি করি ফেসবুক ইউটিউব এর অন্যের তৈরি করা ভিডিও দেখে সময় নষ্ট করি। আমরা যদি চাই  রেগুলার ইনকাম করতে  তাহলে আমাদের নিয়মিত কাজ করতে হবে। প্রতিমাসে যদি আমাদের কিছু ইনকাম থাকে সেটা আমাদের ফিনানসিয়াল ফ্রিডম অর্জনের ক্ষেত্রে অনেক বড় ভূমিকা রাখে। কিন্তু আমরা নিয়মিত কাজ করতে চাই না ।আমরা চাই যে অল্পতেই কিভাবে বেশি টাকাইনকাম করা যায় ।  তাই আমরা পিটিসি সাইটগুলোর পিছনে ইনভেস্ট করি।কিন্তু সেটাই আমাদের অনেক বড় ক্ষতির কারণ হয়ে দাঁড়ায়। ইন্টারনেটে এমন অনেক সুযোগ রয়েছে যে আমরা ইনভেস্ট ছাড়াই নিজেদের মেধা দক্ষতা কে ব্যবহার করে ইনকাম করতে পারি আজকে এমন একটি উপায় এর কথা বলব যেটার উপর দক্ষতা সব ধরনের ছাত্র দেরি আছে আমরা একটু চেষ্টা করলেই এখান থেকে ইনকাম করতে পারি। কনটেন্ট রাইটিং করে আমরা ইনকাম করতে পারি প্রথমে একটু বলে রাখা ভাল কনটেন্ট রাইটিং কি 

 

কনটেন্ট রাইটিং কি ? 

কনটেন্ট রাইটিং হল এমন এক ধরণের রাইট আপ যা কোন ওয়েবসাইট বা পেজ বা কোন পণ্য বা বিষয়ের বিস্তারিত বিবরণ প্রকাশ করে। অনেক একে আর্টিকেল রাইটিংও বলে থাকে। যেমন, আপনি যদি ইন্টারনেটে কোন প্রোডাক্ট বা কোন বিষয় নিয়ে সার্চ করেন তাহলে ফলাফল হিসেবে যে বিবরণগুলো পান সেগুলোই হল কনটেন্ট।

 

সহজ কথায় কনটেন্ট রাইটিং হল কোন বিষয়ের উপর ৩০০-১০০০ বা ২০০০ বা ততোধিক শব্দের লেখা তৈরি করা যা কোথাও থেকে কপি না করে পুরোটাই নিজের ভাষায় লেখা।

 

যাদের ইংরেজীতে অগাধ দক্ষতা তারাই নিজেদেরকে রাইটার হিসেবে প্রতিষ্ঠিত করতে পারেন। বিভিন্ন ওয়েবসাইটে বিভিন্ন উদ্দেশে আর্টিকেল লিখা হয়। ব্লগ আর্টিকেল ছাড়াও প্রোডাক্টের রিভিউ, সার্ভিসের সেলস পেজ, ব্যবসায়িক প্রতিষ্ঠানের জন্য রিসোর্স বই, ব্রশিউর, লিফলেট বা অন্যান্য প্রচারনার কাজে রাইটারদের আরটিকেল লিখার প্রয়োজন হয়।

বেশ কয়েক ধরনের কনটেন্ট রাইটিং এর মধ্যে জনপ্রিয় গুলো নিচে উল্লেখ করলামঃ

  • ওয়েবসাইট কনটেন্ট রাইটিং ।
  • ব্লগ রাইটিং ।
  • ই-বুক রাইটিং।
  • নিউজ কনটেন্ট রাইটিং।
  • এসইও কনটেন্ট রাইটিং । 
  • পণ্যের বর্ণনা লেখা ।
  • একাডেমিক কনটেন্ট রাইটিং।
  • সিভি রাইটিং ।  
  • ট্রান্সক্রিপশন রাইটিং ।
  • গবেষণার কাজে ।

 

আরো পডুন :

এক Click এ বের করুন Domain Hosting এর সব Information

Google keep এর অসাধারণ সব ফিচারস দেখলে অবাক হবেন আপনিও

 

কনটেন্ট রাইটিং করে কিভাবে ইনকাম করা সম্ভব সেটা আমি আপনাদের দেখাবো তো  আসলে ইনকাম করার জন্য আমাদের কিছু কাজ প্রথমে করা দরকার সে কাজটা করার জন্য আমাদের কিছু ইনভেস্ট করতে হবে নগদ অর্থ দিয়ে আইডি কেনার মত কোন কাজ করতে হবে না আমি বলতে চাই যে আমাদের তিনটা জিনিস এবং  ইনভেস্ট করতে হবে তা না হলে আমাদের এই ইনকামটা লংটাইম রেগুলার ইনকাম করা সম্ভব হবে না  যে বিষয়গুলো আমাদের ইনভেস্ট করতে হবেঃ

  • সময়
  • টাকা
  • ধৈর্য
  • রেগুলার

 

সময়ঃ

Time

সময় আপনি যদি একজন ছাত্র হন তাহলে আপনার হাতে পড়াশোনা বাদ দেও আড্ডা দেয়ার জন্য অনেক সময় থাকে । আপনি আপনি সেই সময় থেকে একটু সময় বাদ দিয়ে যদি প্রতিদিন ইন্টারনেটে কন্টেন্ট রাইটিং এর পেছনে সময় দেন। তাহলে একটা সময় আপনার রেগুলার ইনকাম অনেক বেশি হয়ে দাঁড়াবে যা অন্য  বন্ধুরা আপনার কাছাকাছি আসতে পারবে না

টাকাঃ

যেকোনো কাজের জন্য টাকার প্রয়োজন হয় আপনার কনটেন্ট রাইটিং করে ইনকাম করার জন্য কিছু টাকার প্রয়োজন হবে। কারণ কিছু জিনিস না হলে আপনি নিজে কাজগুলো করতে পারবেন না যে জিনিস গুলো হলঃ

  1.  একটি কম্পিউটার বা ল্যাপটপ।
  2.  ইন্টারনেট কানেকশন।

 

ধৈর্যঃ

 ধৈর্য্য ধারন কারী কে আল্লাহ পছন্দ করেন ।আমরা একটু ধৈর্য আমরা চাই সহজে কিভাবে ইনকাম করা যায় আইডি কিনে প্রতিদিন ক্লিক করে আমরা ইনকাম করে ফেলতে চায় ।কিন্তু এটা কোন না কোন সময় আমাদের অর্থ ক্ষতি করে তারা পালিয়ে যায়। তারপরও আমরা বারবার একই কাজ করি । তাই আমাদের কনটেন্ট রাইটিং করে ইনকাম করার জন্য দরকার  ধৈর্য । হয়তো প্রথম দিকে কিন্তু ধৈর্য ধরে যদি প্রতিদিন কাজ করে যেতে পারেন তাহলে আপনার ইনকাম অবশ্যই আসবে ইনশাআল্লাহ।

রেগুলারীটি 

 

নিয়মিত কাজ করা আমাদের জন্য অনেক কঠিন হয়ে যায়। কিন্তু সাফল্য অর্জনের জন্য আমাদের নিয়মিত কাজ করতে হবে। নিয়মিত একটি হলেও আর্টিকেল লিখতে হবে এবং সেটা পাবলিস্ট করতে হবে

 

 ইনকাম কিভাবে সম্ভব ?

তো এবার আসি আসল কথায় কনটেন্ট রাইটিং করলাম সব কিছুই করলাম কিন্তু ইনকাম কিভাবে করব। ইনকাম করার জন্য আমাদের গুগলের এডসেন্স এর সহায়তা নিতে হবে। আমাদের সাইটটাকে মনিটাইজ করাতে হবে। আমাদের সাইটে গুগল এড প্রদান করবে সেগুলো থেকে আমাদের নিয়মিত ইনকাম আসবে। বলে রাখা ভাল  ইউটিউব ভিডিও বা অন্যান্য পদ্ধতি থেকেও আর্টিকেল রাইটিং ইনকামের পরিমাণটা অনেক বেশি। কারণ একটা ভিডিওতে হয়তো এক্টিভ দুইটা দশ মিনিটের ভিডিওতে আমরা কিছু সেট করতে পারব আর ওয়েবসাইটে আমাদের চারপাশ থেকে  অ্যাড দেখাবে এবং প্রতিটি ইম্প্রেশন  এর ভিত্তি করে গুগল আপনাকে পেমেন্ট করবে।

Check Also

youtube

ইউটিউব এর জনপিয় কীবোর্ড শর্টকাট

ইউটিউব সাইটি নাম সোনেনি এমন মানুষ পাওয়া দায়।সবাই কিছুনা কিছু দেখার জন্য ইউটিউব ডোকেন কেউ …

Leave a Reply

Your email address will not be published.

Show Buttons
Hide Buttons
error: Content is protected !!
Skip to toolbar