IT World

যে ১০ টি খাবার খেলে শুক্রাণু বৃদ্ধি পায়

শরীরের পুষ্টির জন্য প্রয়োজন সুষম খাদ্য। পুষ্টিকর খাদ্য শুধুমাত্র আপনার শারীরিক স্বাস্হ্য সুস্হ বজায় রাখে তা নয় যৌন স্বাস্হ্যের ওপর এর প্রভাব পড়ে। আমরা এখানে এমন ১০ টি খাবারের কথা বলবো যা শরীরের শক্তি যোগানের সাথে শুক্রাণুও বৃদ্ধি করতেও সাহায্য করবে।

১. ডিম:

ডিম-র মধ্যে উপস্হিত ভিটামিন প্রজনন ক্ষমতার বৃদ্ধি ঘটায়। অ্যান্টিঅক্সিডেন্ট লিঙ্গের কোষগুলি অকার্যকর হওয়ার থেকে রক্ষা করে।

২. ডার্ক চকলেট:


ডার্ক চকলেটের খাদ্যাভ্যাস পুরুষদের শরীরে বীর্য পরিমাণ বৃদ্ধি করে। এর ফলে শুক্রাণুর সংখ্যাও বৃদ্ধি পায়।

৩. টমেটো:


ইনফর্টিলিটীর দ্বারা পীড়িত মানুষের মধ্যে লাইকোপিনের মাত্রা খুব কম থাকে। ক্যারেটোনাইট লাইকোপিন শুক্রাণুর সংখ্যা এবং কার্যকলাপ বৃদ্ধি করতে সাহায্য করে। টমেটো এই ধরনের অ্যান্টি-অক্সিডেন্ট জন্য খুব ভালো উত্স।

৪. গাজর:


গাজরে উপস্হিত ভিটামিন পুরুষদের স্নায়ুতন্ত্রকে শক্তিশালী করতে এবং যৌন কার্যকলাপ বৃদ্ধি করতে সাহায্য করে।

৫. পালংশাক:


ফলিক অ্যসিডে সমৃদ্ধ পালংশাক শুক্রাণুর সংখ্যা বৃদ্ধি করতে এবং তাকে ভালোভাবে কাজ করতে সাহায্য করে।

৬. আখরোট:


আখরোট বীর্যের ভলিউম বাড়ায়। তার সাথে শুক্রাণু উত্পাদনেও সাহায্য করে। আখরোটে থাকে ওমেগা-3,ফ্যাটি অ্যাসিড যা পুরুষ লিঙ্গে রক্তসংবহনের কাজ খুব ভালোভাবে করে।

৭. বেদানা:


বেদানায় রয়েছে অ্যান্টিঅক্সিডেন্ট। যা শরীরে শুক্রাণুর বৃদ্ধির পরিমাণ কমিয়ে দেয়ন শরীরে মেলোনদিয়েলদিহাদের পরিমাণ হ্রাস করে দেয়। যার ফলে শুক্রাণুর ক্ষমতা বৃদ্ধি পায়।

৮. রসুন:


রসুনে রয়েছে ভিটামিন বি 6 এবং সেলেনিয়ামের আধিক্য। রসুন খেলে কামশক্তি বৃদ্ধি পায়। এলিসীনের ভালো উত্স হওয়ার কারণে রসুন যৌন অঙ্গে রক্তসংবহনের সাথে ধারণক্ষমতাও বাড়ায়।

৯. কমলালেবু:


প্রতিদিন কমলালেবু থেলে শরীর রোগ প্রতিরোধের ক্ষমতা বাড়ে। রোজ এর সেবন করলে আপনার যৌন জীবন ভালো থাকবে। আয়ুর্বেদে কমলালেবুকে গুণের ভান্ডার বলা হয়েছে।

১০. কলা:


কলাতে রয়েছে ভিটামিন এ,সি,বি1. শুক্রাণু উত্পাদন করতে এবং যৌন ক্ষমতা বাড়াতে সাহায্য করে। কলাতে রয়েছে ব্রোমলিন এনজাইম যা সেক্স হরমোন নিয়ন্ত্রণ করার সাহায্য করে।